Fri. Dec 4th, 2020

Dakter Achen

Forget Medicine, GO With Nature

মেদ কমানোর ঘরোয়া ১৫ টি উপায়

1 min read

পৃথিবীতে সব চাইতে সহজ কাজ ওজন বাড়ানো। আর কঠিন কাজ হল মেদ কমানো। বর্তমান সময়ে ছোটো বড় সবাই বাইরের খাবার, জাংক ফুড /ফাস্ট ফুড এর প্রতি এতো আগ্রহী হয়ে উঠেছে যে এর নানা ধরনের অপকারী দিক সামনে আসছে।

মেদ! এমন একটি জিনিষ যা হতে পারে ছোট বড় সবারই বয়স নির্বিশেষে।  অতিরিক্ত মেদ হলে যেমন শারীরিক ক্ষতি তেমনি মানসিক ও। যেমন অতিরিক্ত মেদ হলে :

১.চলাফেরায় অসুবিধা হয়।
২. মনের ইচ্ছে মতো খাবার খাওয়া যায়না।
৩.ইচ্ছে  অনুযায়ী জামা -কাপড় পড়া যায়না।
৪. নানা ধরনের রোগ দেখা দেয়।
৫. শরীর ভালো না থাকলে অবশ্যই মন ও ভালো থাকেনা ইত্যাদি।

ঘরোয়া নানা পদ্ধতিতে মেদ কমানো যায় সাথে নিজের শরীর টা আয়ত্তে ও আনা যায়। এর জন্যে বাড়তি টাকা পয়সার খরচের দরকার নেই।

চলুন দেখে নেই ঘরোয়া পদ্ধতি তে কিভাবে মেদ কমানো যায়:

১. লেবু : এক কাপ কুসুম গরম পানি করে নিন। এতে একটু লবণ ও ২ – ৩ চামচ লেবুর রস দিয়ে গুলিয়ে খেয়ে নিন। লেবুর রস শরীরের মেদ কাটতে সাহায্য করে।

২. রসুন: দুই- তিন কোয়া রসুন খেয়ে নিন পানি তে গুলিয়ে বা আপনি যেভাবে পারবেন।  এরপর লেবুর রস পানিতে গুলিয়ে এক চিমটি লবণ দিয়ে খেয়ে নিন। অবশ্যই তা খাওয়ার ১- ২ ঘন্টা পরে খাবেন।

৩. হাটা: প্রতিদিন এর গন্তব্য এ হেটে যাওয়ার চেষ্টা করুন।  চেষ্টা করবেন প্রতিদিন কম পক্ষে ৩০ মিনিট হাটার। সাথে রাখতে পারেন গ্লুকোজ। কিন্তু অবশ্যই রোদ থেকে ফিরে সাথে সাথেই খাবেন না।

৪. ব্যায়াম: ইউটিউব এ নানা ধরন এর ব্যায়াম করার ভিডিও আছে।
তার মধ্যে যেটি আপনার সহজ লাগে সেটি থেকে শুরু করুন। প্রতিদিন কম পক্ষে ৩০মিনিট ব্যায়াম করুন।  ব্যায়াম আপনার শরীর থেকে ঘাম ঝরিয়ে শরীর কে সুস্থ রাখবে সাথে মেদ ও কমবে।

৫. ফাস্টফুড : ফাস্ট ফুড খাওয়া একদম বন্ধ করে দিন যদি আপনার শরীরে মেদ থাকে তবে। যদি আপনি কন্ট্রোল করে নিতে পারেন তবে মাসে ৩-৪ দিন খেতে পারেন তাও অনেক অল্প পরিমাণে।

৬. কাজ: প্রতিদিন এর নিজের কাজ নিজে করুন। নিজের রান্নাবান্না নিজের কাপড় ধোয়া এসব। দেখবেন আপনার পরিশ্রম আপনার মেদ কমিয়ে দিচ্ছে।

৭.নাচ: নাচ শিখার ট্রাই করুন। নাচা এক ধরনের ব্যায়াম।নাচলে শরীরের মেদ কমে।

৮.ওজন: আপনি আপনার ডায়েট চার্ট শুরু করে থাকলে নিয়মিত ওজন মাপুন। এতে আপনার ইচ্ছাশক্তি বাড়বে।

৯. ইচ্ছা: মেদ কমাবো, শুরু করবো এসব না ভেবে শুরু করে দিন। এতে আপ্নারই লাভ হবে।

১০. সুষম খাবার : নিজের ইচ্ছে মতো এটে সেটা না খেয়ে যা শরীরের জন্যে প্রয়োজন তা খান।

১১. প্রোটিন : ডিম দুধ এসব খাওয়া বাদ দিবেন না। তা আপনার শরীরের জন্যে প্রয়োজনীয়।

১২. মশলা: বেশি মশলা জাতীয় খাবার পরিহার করুন।

১৩. ভেষজ: ভেষজ খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। যেমন : থানকুনি পাতার রস, এলোভেরা ইত্যাদি।

reduce body fat

১৪. কোমল পানীয় : কোল্ড ড্রিংক বা কোমল পানীয় একদম খাওয়া বন্ধ করুন।  এই সমস্ত ড্রিংক যেমন স্বাস্থ্যের জন্যে ক্ষতিকর তেমনি মেদ ও বাড়ায়।

১৫. ঘুম : পরিমিত পরিমাণে ঘুমান। অতিরিক্ত ঘুম শরীরের জন্যে ক্ষতিকর।

সর্বোপরি নিজের রুটিন নিজ এ ঠিক করুন। পরিমিত ও ভালো খাবার খান। শাক- সবজি বেশি খাওয়ার চেস্টা করুন। প্রচুর পরিমাণ এ পানি পান করুন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এ অনেক গ্রুপ ও মানুষ আছে যারা নিজেরা মেদ কমাতে পেরে সাকসেস হয়েছে। তাদের দেখে অনুপ্রাণিত হোন। সুস্থ থাকুন।অতিরিক্ত মেদ হলে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার এর পরামর্শ নিন।

 

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *